Thokbirim | logo

১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ | ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

প্রচারবিমুখ পাস্টর শৈলেন আরেং ।। নীলু রুরাম

প্রকাশিত : জুন ১৭, ২০২১, ১২:০৭

প্রচারবিমুখ পাস্টর শৈলেন আরেং ।। নীলু রুরাম

আমি অবসর সময়ে বিকেল পাঁচটার পর বকুল’দার গ্যারেজে মাঝে মাঝে আড্ডা দিতাম।
আমারে বলত, কি ভাইরা কি খবর?
বলতাম, ভালই।
সেই ১৯৮২ সাল থেকে এক গারো ড্রাইভারকে দেখে আসছি ময়মনসিংহে জিপ গাড়ি নিয়ে বকুল’দার গ্যারাজে আসতে। শুনেছি তিনি এবিএমএস-এর ড্রাইভার। চুপচাপ, বেশি কথা বলত না। আমার সাথে তেমন কোন কথা হয়নি। গাড়ি রিপেয়ারিং কাজে বকুল’দার সাথেই আলাপ হত। নাম শৈলেন আরেং।
বকুল’দা তাঁকে দাদা বলে সম্বোধন করত। আমি তখন ওয়ার্ল্ড ভিশনে, কাচিঝুলি সাহেব কোয়ার্টারে কর্মরত।
২০১৩-২০১৬ সালে এ একই ব্যক্তির সাথে জয়রামকুড়া হাসপাতালে চুক্তিভিত্তিক কাজ করার সময় নতুন ভাবে পরিচয় হল। সেই শৈলেন আরেং তখন পাস্টর শৈলন আরেং। তিনি জয়রামকুড়া সবচেয়ে বয়স্ক সেবিকা শ্রদ্ধেয়া কুলদা সাংমার স্বামী।  জয়রামকুড়া গারো ব্যাপ্টিষ্ট কনভেনশন (জিবিসি) চার্চের পাস্টর।
এখনো চুপচাপ থাকেন। বয়সের ভারে বাইরে বড় একটা বেরুন না।  পুরাতন মানুষের সাথে নতুনভাবে পরিচয়।  কোনদিন চিন্তাও করিনি জীবনে জিবিসি পরিচালিত হাসপাতালে আমি সম্পৃত্ত হব। ভগবানের হয়তো ইচ্ছে ছিল অবসর সময় জিবিসি চার্চে আমাকে কাজ করার সুযোগ করে দেয়ার।  কর্মকালিন একদিন পা: শৈলেন আরেং-এর সাথে আলাপচারিতা হয়েছে তাঁরই জয়রামকুড়া বাসায়। পা: মনোজ চাম্বুগং আমার গাইড।  সে আলাপচারিতা অতি সীমিত। অল্প সাক্ষাৎকার “সুবর্ণ জয়ন্তী স্মরণিকা-“শালোম”, দি জিবিসি খ্রীষ্টিয়ান হেলথ প্রজেক্ট, জয়রামকুড়া (১৯৬৪-২০১৪) প্রকাশনার নিমিত্ত।
আমি নিজেও তখন খুবই ব্যস্ত। তাই তাঁর সাথে বিস্তারিত আলাপ করে তাঁর জীবনের ঝাপি খুলতে পারলাম না।
তিনি ৪৪ বছর এবিএমএস-এ ( AUSTRALIAN BAPTIST MISSION SOCIETY) কাজ করেছেন।
তিনি এবিএমএস-এর বহু ঘটনাবহুল ইতিহাসের স্বাক্ষী।  তাঁর জীবিতকালিন তাঁর সমাজের কেউ এ সমস্ত ইতিহাস নিয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেনি। মিশনারীদের অনেক অজনা কথা গোপনই রয়প গেল।আমরা জানতে পারলাম না। তিনিও স্বপ্রণোদিত হয়ে কাউকে জানিয়েছেন কিনা জানি না। রাখীপূর্ণা আরেং-এর মৃত্যুকালিন স্মৃতিচারণের প্রক্ষাপটে আমার পাস্টর শৈলেন আরেংকে নিয়ে সামান্য সহভাগিতা। প্রভু তাঁর বিদেহী আত্মাকে চির শান্তিতে রাখুন, এই কামনা করি।

# ছবি: রাখীপূর্ণা আরেং প্রোফাইল থেকে



 




সম্পাদক : মিঠুন রাকসাম

উপদেষ্টা : মতেন্দ্র মানখিন, থিওফিল নকরেক

যোগাযোগ:  ১৯ মণিপুরিপাড়া, সংসদ এভিনিউ ফার্মগেট, ঢাকা-১২১৫। 01787161281, 01575090829

thokbirim281@gmail.com

 

থকবিরিমে প্রকাশিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। Copyright 2020 © Thokbirim.com.

Design by Raytahost
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x