Thokbirim | logo

১৪ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

প্রমোদ মানকিন স্মরণে কবি মতেন্দ্র মানখিনের কবিতা

প্রকাশিত : মে ১১, ২০২১, ১৯:১৪

প্রমোদ মানকিন স্মরণে কবি মতেন্দ্র মানখিনের কবিতা

আজ ১১ মে সাবেক সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী গারো সমাজের মহান নেতা TWA-এর চেয়ারম্যান অ্যাড. প্রমোদ মানকিনের প্রয়াণ দিবস। গারো সম্প্রদায়ের এই মহান নেতার আত্মার চিরশান্তি কামনা করি। বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে খ্রিষ্টান সম্প্রদায় তথা গারো আদিবাসীদের মধ্যে একটি স্মণীয় নাম অ্যাড. প্রমোদ মানকিন। অ্যাড. প্রমোদ মানকিনের  অবদান অনস্বীকার্য। তিনি বাংলাদেশি গারো আদিবাসীদের হৃদয়ে বেঁচে থাকবেন ততদিন যতদিন বাংলাদেশে রাজনীতি থাকবে রাজনীতির ইতিহাস থাকবে। গারো জাতিসত্তার বিশিষ্ট কবি মতেন্দ্র মানখিন অ্যাড. প্রমোদ মানকিনকে নিয়ে লিখেছেন বেশ কয়েকটি কবিতা ও গান। কবির কাব্যগ্রন্থ ‘ধূর্তছায়া নষ্টকাল’ গ্রন্থ থেকে সেই তিনটি কবিতা পাঠকদের জন্য প্রকাশ করা হলো সেইসাথে অ্যাড. প্রমোদ মানকিনকেও গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি।

 

নক্ষত্র হারিয়ে গেল

(প্রয়াত প্রতিমন্ত্রী প্রমোদ মানকিন এম. পি. স্মরণে)

ঢাকা, সিলেট বৃহত্তর ময়মনসিংহ জুড়ে শোকের ছায়া

বিধ্বস্ত আকাশ, সপ্তাপে নড়বড়ে অস্তিত্বের

কঙ্কাল ছিন্ন-ভিন্ন দিগভ্রান্ত উড়ে যায় বিচিত্র স্বপ্নের পালক সুন্দর

নক্ষত্র হারিয়ে গেল, চারপাশে নিঃস্ব অন্ধকার।

 

পাহাড় প্রকৃতি, বন-বনাঞ্চল আজ দুঃখ ভারাক্রান্ত

প্রিয় হারানোর ব্যথায় যন্ত্রণাকাতর

কংশ, নিতাই, সোমেশ্বরী গনেশ্বরী, মহাদেও, ভুগাই

বাকশিল্প হারিয়েছে মেধাহীন মনন

খাপছাড়া কোলাহল ক্রন্দসী আমাদের কবিতার বাগান।

 

আমাদের আকাশে ভাঙারিয়া চাঁদ ম্রিয়মান

ধূলি মলিন অস্পষ্ট নীহারিকা পুঞ্জ

প্রমোদহীন আমাদের আনন্দ উৎসব কলতান

নীরব কান্নায় স্তব্ধ রাং-খ্রাম আদুরু বাদ্যযন্ত্রগুলো।

 

যাঁর কণ্ঠে শোনা যেত সাম্য মৈত্রী মিলনের গান

আজ তার মৃত্যুতে সব শূণ্য মরুভূমি

শূন্যতার মাঝে ডিগবাজি খায়

আশাহত অসংখ্য সূতোছেঁড়া ঘুড়ি

 

আমাদের একটি মাত্র নক্ষত্র কালের গহবরে হারিয়ে গেল।

ছায়াকানন ১৩/৫/১৬

যখন যতদূর যেখানে যাই

যখন যতদূর যেখানে যাই সেখানেই প্রমোদ মানকিন

একাকীত্ব, দূর্গম পথ চলায় বিমূর্ত ছায়াসঙ্গী

নিস্ফল প্রাণ, পৌরাণিক বিষণ্নতা মুছে দেয়

জলতরঙ্গের সুর পরম্পরাগত লোকায়ত জীবন ধারা

সামাজিক দায়বদ্ধতায় কাছে এসে বসে থাকেন তিনি

মুহূর্তের পর মুর্হূত যুগসন্ধিকালে অভ্যস্থ নির্ভর

ব্যর্থ জীবনের আশার স্বপ্ন হয়ে

পাহাড়-অরণ্য-সমতল বিস্তৃত গাঙ্গেয় বদ্বীপ জুড়ে

কী অদ্ভুদ উৎসারণ তাঁর!

অনেক বদলিয়ে গেছে দেশ-কাল,পারিপার্শ্বিকতা

তিনি অতীত, তিনি বর্তমান, তিনিই ভবিষ্যৎ

চির ভাস্মর তিনি সময়ের প্রেক্ষাপটে পরিদৃশ্যমান

মনে-বনে-কোণে নির্ণীয়মান পটভূমি

ক্ষতময় বিরানভূমিতে বহান ফাগুনের ফল্গুধারা।

তিনি কোনো কবি নন, ছন্দমালা গাঁথেননি কোনোদিন

অতীব সত্য,তবু তিনি কবি, বঞ্চিত সমাজের

তার কথার মাধুরীতে চাঁদ হাসে, পাহাড় অরণ্য জনপথ

নেচে ওঠে ঝর্নাধারা অসীম রহস্যে

মরা নদীতে জোয়ার আসে জেগে ওঠে কবিতা ও দেবতা।

পাহাড় পাদদেশ থেকে সুদূর ঢাকা নগরী এ বাংলাদেশ

কংশ নিতাই, সোমেশ^রী থেকে পদ্মা মেঘনা যমুনা

ব্যপ্ত কুয়াশার মধ্যে কেমন বিপন্ন, শোকাচ্ছন্ন আজ

শূন্যঘরে নিষ্ফল, নিঃস্বতার আগুনে পুড়ে যায় সময়

তবু শুনি তার এগিয়ে চলার মন্ত্র মানবতার জয়গান

সঞ্জীবিত করে প্রিতিনিয়ত স্থবির এ জীবনটাকে।

 

প্রমোদ উদ্যানে নক্ষত্রের প্রার্থনা

ফুল তো আছেই প্রমোদ উদ্যানে, ফুলের কী প্রয়োজন

ফাগুন রাঙানো বসন্ত এ দিন

সাধন-ভজনে মুখরিত হোক মমতা ভবন।

প্রমোদ উদ্যানে বহুপ্রজ নক্ষত্রের প্রার্থনা

বিপুল যজ্ঞ নিবেদন

কোকিল কণ্ঠে বসন্তের প্রমিত উচ্চরণ

নগ্নপায়ে হেঁটে যায় পলাশ ফোটা ভোর।

মুছে ফেলি শোক সন্তাপ দুঃখ ভারাক্রান্ত

শূচিস্নাত হই নির্মল আলোর ঝর্না ধারায়

উড়ুক বিজয় পতাকা পাহাড় অরণ্য শিখরে

স্মৃতিচারণ হোক শব্দ-ছন্দের অপূর্ব মিলনে।

প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করুন

প্রমোদ মানকিন আজ কবিতা পাঠের আসরে।

ছায়াকানন

১৫/০৩/১৬

কভার ছবি : ব্লেজিং চিরান ব্লেজ



https://www.youtube.com/watch?v=eUFX7tTvm0U&t=24s



মধুপুর জলছত্রে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

করোনায় পাহাড়ি আদিবাসীদের সংকটময় জীবন যাপন

করোনায় কেমন যাচ্ছে আদিবাসীদের জীবন 

করোনাকালীন তিনটি কবিতা ।। মতেন্দ্র মানখিন

একজন ভালো মনের মানুষ ব্রাদার গিয়োম ।।  কিউবার্ট রেমা

ttps://www.youtube.com/watch?v=WtVe7pOQaQ8&t=182s




সম্পাদক : মিঠুন রাকসাম

উপদেষ্টা : মতেন্দ্র মানখিন, থিওফিল নকরেক

যোগাযোগ:  ১৯ মণিপুরিপাড়া, সংসদ এভিনিউ ফার্মগেট, ঢাকা-১২১৫। 01787161281, 01575090829

thokbirim281@gmail.com

 

থকবিরিমে প্রকাশিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। Copyright 2020 © Thokbirim.com.

Design by Raytahost