Thokbirim | logo

৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ | ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

দেবতার নামে যাত্রা শুরু ‘স্টুরা আইটি

প্রকাশিত : নভেম্বর ০৯, ২০২০, ২৩:১৫

দেবতার নামে যাত্রা শুরু ‘স্টুরা আইটি

অনেকদিন যাবো যাবো করে যাওয়া হয়ে উঠেনি।কাজের চাপ যখন কমলো তখন মনে পড়লো লিয়াং রিছিল(দাদা) এর কথা। হঠাৎ করেই যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলাম। তাই মেইনরোড দিয়ে না গিয়ে জঙ্গলের রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলাম। সঙ্গী হিসাবে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যয়নরত কেনেডি রিছিলকে সাথে নিলাম। যখন জঙ্গলের ভিতর দিয়ে যাচ্ছিলাম, তখন ঠাণ্ডা বাতাসের অনুভব পেলাম। মনে অন্যরকম প্রশান্তি এসে পড়লো। আ-হা, ভালোবাসার বন। যে বনের জন্য এত আন্দোলন, রক্তে লাল হলো মাটি, তবুও বন ধ্বংসেরর পথে…

মাদলের, “পীরেন স্নাল” গানটি গাইতে গাইতে যখন চারিদিকে বনের গাছপালা লতাপাতা দেখছিলাম বুকের ভেতর হাহাকার মনে হলো। দীর্ঘদিন পর বনে গেলাম, দেখলাম গজারি গাছের নিচেই নানা ধরনের ফলের গাছ লাগানো। কি-সব প্রজেক্ট এর কারসাজি! আরো দেখলাম রাস্তা থেকেই বনের মধ্য দিয়ে কলাগাছ দেখা যাচ্ছে, যা আগে দেখতাম না।তার মানে মধুপুর বন ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। বেশিদিন আর নেই যেটুকু বন আছে সেইটুকুইবা টিকে কতদিন! যা চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।
আজকে বন, মধুপুর, আ’বিমার কথা এখানেই শেষ।কথা বলবো স্টুরা আইটি নিয়ে।

যখন জলই গ্রামে পৌঁছালাম তখন দুপুর ১ টা বাজে। রাস্তার পাশেই স্টুরা আইটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রটি অবস্থিত। তাই কাউকে জিজ্ঞাসা পর্যন্ত করতে হয়নি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রটি কোথায়! যখন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে উঁকি মারলাম, তখন দেখলাম বেশ ক’জন শিক্ষার্থী মনযোগ সহকারে কম্পিউটারের দিকে তাকিয়ে আছে। লিয়াং দার কথা যথাযথ বুঝে নেওয়ার চেষ্টা করছে। আবার আরেকটি জায়গায় দু’জন মেয়ে টাইপিং করছে। যেহেতু লিয়াং দা শিক্ষার্থীদের ক্লাশ নিচ্ছিলেন তাই কিছুক্ষণ বাইরে অপেক্ষা করলাম।ক্লাশ শেষে চায়ের দাওয়াত দিলেন, লুফে নিলাম, আমরাও কিছুক্ষণ চায়ের আড্ডায় মেতে উঠলাম।গারো, আদিবাসী, আ’বিমা ইস্যু নিয়ে বিস্তর আলাপ আলোচনা শেয়ারিং করলাম। শেষে নতুন উদ্যোগের কথা জানতে চাইলাম। তিনি জানালেন, SturaIT নামকরণ: গা‌রো পুরা‌ণে, তাতারা রাবুগা হ‌লেন নক‌গিপা অর্থাৎ সৃ‌ষ্টিকর্তা। শতা‌ধিক না‌মে তি‌নি আরাধ্য হন। স্তুরা পান্তুরা (জীব‌নের একমাত্র বন্ধন ও সং‌যোগ), দাক‌গিপা রু‌গিপা (স্রষ্টা ও রূপকার), সুল‌গিপা ইম‌বিং‌গিপা (প্রান্ত বা কো‌ণের নির্ণয় ও সুষমাম‌ন্ডিতকারী), জাং‌গি‌নি নকি ‌গিপা (জীব‌নের অধীশ্বর), জামা‌নি বিয়া‌ম্বি (মানবজীব‌নের একমাত্র নিগূঢ় রহস্য) প্রভৃ‌তি তাঁর আরাধ্য নাম। কোথাওবা তি‌নি নারীদেবীরূ‌পে পূ‌জিতা। সেই অর্থে তি‌নি প্রকৃ‌তির গর্ভাশয়, স‌র্বোচ্চ অদ্বৈত শ‌ক্তি এবং সমস্ত কিছুর আ‌দি। নক‌গিপার আলংকা‌রিক নাম স্তুরা পান্তুরা (জীব‌নের একমাত্র বন্ধন ও সং‌যোগ) অনুসা‌রেই প্রতিষ্ঠা‌নের নামকরণ করা হ‌য়ে‌ছে “স্তুরা আইটি”। তিনি আরো জানান, সকাল সাতটা থেকে রাত এগারোটা পর্যন্ত ব্যস্ত থাকেন।শুক্রবার ছুটি থাকে। স্টুরা আইটিতে এখন মোট ৪০ জন প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। নতুন নতুন শিক্ষার্থী ভর্তির জন্য যোগাযোগ করছেন।বর্তমানে অভিভাবগণ ভীষণ সচেতন তাই তো আইটি সেক্টরে নিজেদের মেয়ে-ছেলেদের প্রশিক্ষণে আগ্রহ দেখাচ্ছেন। কম্পিউটার বেসিক কোর্স ছাড়াও এখানে যেমন-ও‌য়েব ডিজাইন, গ্রা‌ফিক্স ডিজাইন, হার্ডওয়্যার ও সফটওয়ার এবং ডাটা‌বেজ ম্যা‌নেজ‌মেন্টসহ প্রাথ‌মিক পর্যা‌য়ের যেমন অ‌ফিস এপ্লিকেশন কোর্স সেবাও প্রদান ক‌রে থা‌কে।

এই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রটিতে জলই, টেলকী,গাইরা, কাকড়াগুনিসহ অন্যান্য গ্রাম থেকেও স্টুরা আইটিতে প্রশিক্ষণ নিচ্ছে।স্টুরা আইটিতে অনলাইন কিংবা অফলাইনের মাধ্যমেও প্রশিক্ষণ নেওয়া যায়।

সন্ধ্যা নামার আগেই,শেষে শুভকামনা জানিয়ে বিদায় নিয়ে চলে আসি।মনে মনে ভাবতে থাকি,গারো অঞ্চলে আইটি পারদর্শী হতে বেশিদিন আর বাকি নেই।কেন না, যেভাবে আইটির প্রসার হচ্ছে। আশা করাই যায় নতুন প্রজম্ম আরো দক্ষ ও সৃজনশীল হয়ে উঠবে।

।। জাডিল মৃ

 




সম্পাদক : মিঠুন রাকসাম

উপদেষ্টা : মতেন্দ্র মানখিন, থিওফিল নকরেক

যোগাযোগ:  ১৯ মণিপুরিপাড়া, সংসদ এভিনিউ ফার্মগেট, ঢাকা-১২১৫। 01787161281, 01575090829

thokbirim281@gmail.com

 

থকবিরিমে প্রকাশিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। Copyright 2020 © Thokbirim.com.

Design by Raytahost