Thokbirim | logo

২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সোমেশ্বরী(সিমসাং)নদীর অবৈধ বালু উত্তোলনের প্রতিবাদে মানববন্ধন

প্রকাশিত : অক্টোবর ২৫, ২০২০, ১৩:৪২

সোমেশ্বরী(সিমসাং)নদীর অবৈধ বালু উত্তোলনের প্রতিবাদে মানববন্ধন

নেত্রকোনা জেলার দূর্গাপুর উপজেলার সোমেশ্বরী নদীর অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধ এবং নদী ভাঙন রোধে বাঁধ নির্মাণ ও ক্ষতিগ্রস্তদের সহযোগিতার দাবিতে মানববন্ধনের আয়োজন করেন বাংলাদেশ গারো ছাত্র সংগঠন(বাগাছাস)কেন্দ্রীয় সংসদ। বাগাছাস কেন্দ্রীয় সংসদ এর সভাপতি জন যেত্রার সভাপতিত্বে, জ্যাক হাজং এর সঞ্চালনায় মানববন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মানববন্ধনে সমাজকর্মী হেলিন যেত্রা বলেন, মধুপুরেই শুধু সমস্যা নই, দুর্গাপুরেই শুধু সমস্যা না যেখানেই আদিবাসী মানুষের বসবাস সেখানেই সমস্যা।অবৈধ বালু উত্তোলনের ফলে সেখাকার চাষাবাদ জমি ঘরবাড়ি গ্রামসহ বিলীন হয়ে যাচ্ছে।এইভাবে যদি চলতে থাকে তাহলে আদিবাসি মানুষরা কোথায় যাবে।এই সোমেশ্বরী (সিমসাং) নদীর বালু উত্তোলনের ফলে গুটিকয়েক মানুষ লাখপতি হচ্ছে কিন্তু ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সবাই।তাই যত দ্রুত সম্ভব অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধ হোক।

কোচ আদিবাসীর সংগঠক গোরাঙ্গ কোচ বলেন,অবৈধ বালু উত্তোলনের ফলে যে ঐতিহ্যবাহী খামারখালি রানীখংসহ পাঁচটি গ্রাম বিলীন হওয়ার পথে। অবিলম্বে সরকারকে বাঁধ রক্ষার উদ্যোগ নেওয়ার আহবান জানান।

কেন্দ্রীয় সংসদ বাগাছাসের সাধারণ সম্পাদক অলিক মৃ বলেন,দূর্গাপুর উপজেলার যে পাঁচটি গ্রাম আজ সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে অর্ধেক গ্রাম আজ বিলীন হয়ে গেছে।এই রাষ্ট্রের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি অতি দ্রুত স্থায়ী বাঁধ নিমার্ণ করতে হবে।যাতে আর কোন গ্রাম বিলীন না হয়ে যায়।যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাঁদেরকে দ্রুত ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।এই বাংলাদেশের প্রত্যেকটা আদিবাসীর নিরাপত্তা দেওয়া রাষ্টের দায়িত্ব।শুধু সোমেশ্বরী সমস্যা নয়, বাসন্তী রেমার সমস্যা নয়, এমনি অনেক শতশত সমস্যা পাহাড় এবং সমতলে রয়েছে যা আদিবাসীদের সুরক্ষায় রাষ্টের দায়িত্ব রয়েছে এবং আদিবাসীদের নিরাপত্তা রাষ্ট্রকে নিশ্চিত করতে হবে।

 

ঢাকা মহানগর শাখার আহ্বায়ক (বাগাছাস) ডন যেত্রা বলনে, আমরা দাবি জানাই যারা অবৈধ বালু ব্যবসার সাথে জড়িত তাদেরকে অতিবিলম্বের আইনের আওতায় এনে বিচার করতে হবে।এবং যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাঁদের কে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।স্থায়ী বাঁধ করতে হবে।এই নদী,এই বন, এই মাটি না থাকলে আদিবাসী মানুষরা বেঁচে থাকতে পারে না।

সভাপতির বক্তবে জন যেত্রা বলেন, যেখানেই বারবার নিপীড়ন হয়, যেখানেই আদিবাসীদের সমস্যা হয় সেখানেই বাগাছাস প্রথম সারিতে থেকে লড়াই করে যাচ্ছে।আজকে আমরা সংশয় প্রকাশ করি, আর কত ঘরবাড়ি ভাঙ্গলে আর কত গ্রাম বিলীন হলে প্রসানের টনক নড়বে।আজ আপনাদের বলতে চাই দূর্গাপুর বাসী আপনারা একা নন আমরা মধুপুরবাসী সারা বাংলাদেশের আদিবাসী আপনাদের সাথে আছে।আমরা নদী,পাহাড়,প্রকৃতি কে ভালোবাসি। অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধ করে প্রকৃতিকে নিজের মতো করে চলতে দিতে হবে। অবিলম্বে স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ করতে হবে,ক্ষতিগ্রস্থদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে দাবি জানিয়ে মানববন্ধন সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, বাগাছাস কেন্দ্রীয় সংসদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক প্রেমাতুষ ম্রং,বাগাছাস ঢাকা মহানগর শাখার সদস্য সচিব শোভন ম্রং, বাগাছাস মধুপুর শাখার সভাপতি নিউটন মাজিসহ প্রমুখ।

।। জাডিল মৃ,  মধুপুর



আত্মকথা ।। আমার বাইপাস অপারেশন ।। ফাদার ‍শিমন হাচ্ছা

সংগঠনের ৩১ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন বিএমএসসি

বাসন্তী রেমার হাতে তুলে দেওয়া হলো দুই লাখ পঁচাত্তর হাজার টাকা 

কোভিড-১৯ ।। নিজে সচেতন হই, অন্যকেও সচেতন করি।। মানুয়েল চাম্বুগং

সামনে আরো ভিন্ন ভিন্ন ভাষায় গান নিয়ে আসতে পারবো আশা করছি ।। পিংকি চিরান (এফ মাইনর)

গানের শিক্ষক পল্লব স্নাল স্মরণে ।। মতেন্দ্র মানখিন

রাঙামাটিতে চলন্ত সিনজিতে আদিবাসী কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা, আটক ২




সম্পাদক : মিঠুন রাকসাম

উপদেষ্টা : মতেন্দ্র মানখিন, থিওফিল নকরেক

যোগাযোগ:  ১৯ মণিপুরিপাড়া, সংসদ এভিনিউ ফার্মগেট, ঢাকা-১২১৫। 01787161281, 01575090829

thokbirim281@gmail.com

 

থকবিরিমে প্রকাশিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। Copyright 2020 © Thokbirim.com.

Design by Raytahost