Thokbirim | logo

১৪ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সংস্কারের অভাবে চলাচলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ৫টি গ্রামের আদিবাসীদের

প্রকাশিত : অক্টোবর ১৫, ২০২০, ১২:৪৪

সংস্কারের অভাবে চলাচলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ৫টি গ্রামের আদিবাসীদের

খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাংগা উপজেলা ৬ নং মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়নের পরিষদের ৭ নং ওয়ার্ড-এর দুর্গম এলাকা ৫ টি গ্রামের মানুষ ভাঙা রাস্তা সংস্কারের অভাবে মৃত্যুর ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। কাইলাংশি পাড়া, তৈকুম্বা পাড়া, থাংতুং পাড়া, মুশি পাড়া, বিল পাড়া, ১ নং রাবার বাগান এলাকাটি অধ্যুষিত আধিবাসী ত্রিপুরা, মারমা জাতিসত্তার বসবাস। আর এ ৫ টি গ্রামের মানুষের স্কুল, কলেজ কিংবা হাট বাজারে চলাচলে একমাত্র কাঁচা পথ হচ্ছে ১ নং রাবার বাগান রোড। কিন্ত এ আধিবাসী গ্রামের ৬/৭ কিলোমিটার কাঁচা রাস্তা  দীর্ঘদিন ধরে এ রাস্তার বেহাল অবস্থার কারণে গ্রামের মানুষের যাতায়াতের ক্ষেত্রে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। কিন্তু দেখার কেউ নেই। এমতাবস্থায় আরো মৃত্যুর ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে সাধারণ মানুষ।


গ্রামবাসীরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে সরকারিভাবে বা স্থানীয় মেম্বার কিংবা চেয়ারম্যান এ রাস্তার সংস্কারে কোন উদ্যোগ নেননি। রাস্তাটি সংস্কারের জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মৌখিকভাবে জানানোর পরও এ বিষয়ে তারা কোন ব্যবস্থায় নেয়নি। অথচ সরকারের টিআর, কাবিখা, কর্মসৃজনসহ বিভিন্ন প্রকল্প বরাদ্দ করা হলেও তা গ্রামীণ রাস্তা সংস্কারের ক্ষেত্রে কোন উপকার আসছে না। তাছাড়া এলাকাটি দুর্গম হওয়ায় কোন সাংবাদিক বা পত্রিকায় নজরেইও আসেনি। তাই কোন উন্নয়নের ছোঁয়াও লাগেনি। আর তাতে গ্রাম বাসী মৃত্যুকে হাতে নিয়ে ভাঙা কাঁচা রাস্তা দিয়ে ভাড়ায় চালিত মোটর সাইকেল কিংবা পায়ে হেঁটে চলাচল করতে হচ্ছে। আর ভাঙা কাঁচা রাস্তা হওয়ায় বর্ষাকাল আসলে মৃত্যু ঝুঁকি আরো বেড়ে যায়।
তাই গ্রামবাসীরা অনতিবিলম্বে রাস্তাটি সংস্কারের জন্য এলাকার চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের সুনজর চান।

।। আদিত্য ত্রিপুরা



বহেরাতুলি গ্রামকেও গ্রাস করছে সোমেশ্বরী ।। জর্জ রুরাম

ইতিহাস থেকে হারিয়ে যাচ্ছে দিঘলবাগ গ্রামের মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি ।। অরন্য ই. চিরান

মেথ্রা জাজং নিয়া বা যুবতীদের চাঁদ দেখা নাচ: জিংজিংগ্রিকগা রওয়া বা প্রিয়জনকে ধরে নাচ ।। তর্পণ ঘাগ্রা

ব্রাদার গিউম পেলেন নেদারল্যান্ড রাজার বিশেষ সম্মাননা ‘অ্যাওয়ার্ড অব দ্যা কিং

ইউটিউবটাই আমার ভালোবাসা ।। নীল নন্দিতা রিছিল

গারো ভাষা ও সাহিত্যের স্বরোপ-৪ ।। বর্ণমালা সংক্রান্ত কিছু তথ্য ।। বাঁধন আরেং

https://www.facebook.com/thokbirim/videos/782974379102661

লেখক ও মানবাধিকারকর্মী সঞ্জীব দ্রং

ব্রাদার গিউমের বাংলাদেশে বসবাসের সময় ৪০ বছর পূর্ণ হলো এই বছর। দীর্ঘ চল্লিশ বছর ধরে ব্রাদার বাংলাদেশের মানুষজনদের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। সেই কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ এই প্রথম বাংলাদেশে অবস্থানরত নেদারল্যান্ডবাসী ব্রাদার গিউম নেদারল্যান্ড রাজার বিশেষ সম্মাননা পুরস্কার অ্যাওয়া্র্ড অব দ্যা কিং’ পেলেন। সেই সম্মাননা প্রাপ্তি নিয়ে কথা বলছেন বিশিষ্ট লেখক ও মানবাধিকারকর্মী সঞ্জীব দ্রং

Gepostet von Thokbirimnews.com am Freitag, 9. Oktober 2020




সম্পাদক : মিঠুন রাকসাম

উপদেষ্টা : মতেন্দ্র মানখিন, থিওফিল নকরেক

যোগাযোগ:  ১৯ মণিপুরিপাড়া, সংসদ এভিনিউ ফার্মগেট, ঢাকা-১২১৫। 01787161281, 01575090829

thokbirim281@gmail.com

 

থকবিরিমে প্রকাশিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। Copyright 2020 © Thokbirim.com.

Design by Raytahost