Thokbirim | logo

১৪ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আজ রামুর সম্প্রীতি ও ঐতিহ্য বিনষ্টের ৮ বছর 

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০, ০৯:০৩

আজ রামুর সম্প্রীতি ও ঐতিহ্য বিনষ্টের ৮ বছর 

আজ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রি. রামু সহিংসতার ৮ বছর। সম্প্রীতি, ঐতিহ্য বিনষ্টের ভয়াল এ রাতের বিভীষিকা মুছে দিয়েছিলো শত বছরের ঐতিহ্যের স্মৃতিচিহ্ন। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেহে সৃষ্টি হয়েছিলো অবিশ্বাসের বিশাল ক্ষত। দেশে-বিদেশে তোলপাড় হওয়া এ ঘটনায় শীর্ষ অভিযুক্তরা বাদ পড়লেও অসংখ্য নিরীহ লোকজন মামলায় জড়িয়ে প্রতিমাসে আদালতে হাজিরা দিয়ে যাচ্ছেন কিন্তু প্রকৃত অপরাধীরা পাড় পেয়ে যাচ্ছে।

রামুর বুদ্ধ বিহারের বুদ্ধমুর্তি, বৌদ্ধ বিহার ও বসতিতে ভাংচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগসহ সাম্প্রদায়িক হামলার বর্ষ অতিক্রান্তে সেই বিভীষিকাময় অভিশপ্ত দিনটিকে স্মরণ, মানবতা ও শান্তি কামনায় প্রতিবছর প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করে থাকে রামুর বৌদ্ধ সম্প্রদায়। কিন্তু এ বছর করোনা (কোভিড ১৯) মহামারীর কারণে তা হচ্ছে না।

এরকম সাম্প্রদায়িক ঘটনার সাথে জড়িত প্রকৃতি অপরাধীরা পাড় পেয়ে যাওয়ার কারণে পাহাড় ও সমতলে আদিবাসী জনগোষ্ঠী ও সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর উপর ঘটনা পুনরাবৃত্তি ঘটছে। এছাড়া পার্বত্য চট্টগ্রামে আধিবাসীদের উপর জাতিগত নিপীড়ন অংশ হিসেবে প্রতিনিয়ত নারী ধর্ষণ, ভূমি বেদখল, ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগ ও পর্যটনের নামে আধিবাসীদের উচ্ছেদ নিত্যদিনে ঘটে যাচ্ছে। এসব ঘটনায় মূলতঃ  পার্বত্য চট্টগ্রামের বহিরাগত সেটেলার বাঙালিরাই জড়িত আর এসব রাষ্ট্রীয় মদদ ছাড়া কখনো সম্ভব নয় বলে মনে করেন পাহাড়ের বুদ্ধজীবীরা।

পাহাড়ের রাজনীতিবিদ ও বুদ্ধিজীবিরা মনে করেন পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সারাদেশে সংখ্যালঘুদের উপর যে সাম্প্রদায়িক ঘটনার সাথে জড়িত তাদেরকে সর্বোচ্চ শাস্তি প্রদান করলে এরকম ঘটনা ঘটার মতো পরিস্থিতি তৈরি হতো না বলে মনে করেন। তাই রাষ্ট্রের প্রতি বাংলাদেশের সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রশাসনকে নিরপেক্ষ আচরণে আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর রাতে রামুর উত্তম কুমার বড়ুয়া নামের এক বৌদ্ধ যুবকের ফেসবুকে পবিত্র কোরআন অবমাননার অভিযোগ তুলে দুষ্কৃতিকারীরা মিছিল-সমাবেশ করে বৌদ্ধ বিহার ও বসতবাড়িতে হামলা, ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাট চালায়। এসময় রামুর ১২টি বৌদ্ধ বিহার, ২৬টি বসতঘর ও দোকান পুড়িয়ে দেয়া হয়। ভাংচুর ও লুটপাট করা হয় আরও ছয়টি বৌদ্ধ বিহার ও শতাধিক বসতঘরে। পরদিন উখিয়া- টেকনাফে আরো কয়েকটি বৌদ্ধ বিহার ও পল্লিতে একই ঘটনা ঘটে।

 

।। আদিত্য ত্রিপুরা

 

আরো লেখা…

ওয়াত্তা-চেংআ’ কোভিড-১৯ লকডাউনে অন্যভাবে উপার্জন ।। অনিমেষ তজু

তিনশত (৩০০) গারো, কোচ ও বর্মণ আদিবাসী পরিবারকে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ

https://www.facebook.com/IndependentTVNews/videos/1211504035676807

আদিবাসী সাহিত্য নিয়ে বইমেলায় 'থকবিরিম'

একুশে বইমেলায় আদিবাসীদের সাহিত্য চর্চা নিয়ে হাজির হয়েছে #থকবিরিম প্রকাশনী। দেশসেরা প্রকাশনীগুলোর পাশাপাশি সমানতালে এগিয়ে এটি। এক নজরে দেখে নিন……….

Gepostet von independent24.tv am Freitag, 22. Februar 2019




সম্পাদক : মিঠুন রাকসাম

উপদেষ্টা : মতেন্দ্র মানখিন, থিওফিল নকরেক

যোগাযোগ:  ১৯ মণিপুরিপাড়া, সংসদ এভিনিউ ফার্মগেট, ঢাকা-১২১৫। 01787161281, 01575090829

thokbirim281@gmail.com

 

থকবিরিমে প্রকাশিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। Copyright 2020 © Thokbirim.com.

Design by Raytahost