Thokbirim | logo

১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ | ১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বিরিশিরি বালিকা বিদ্যালয়ের ইতিহাস ।। পর্ব-৮ ।। মণীন্দ্রনাথ মারাক

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০, ১৩:০৬

বিরিশিরি বালিকা বিদ্যালয়ের ইতিহাস ।। পর্ব-৮ ।। মণীন্দ্রনাথ মারাক

১৯৫৫ সনে মিল জে. এ. রেডম্যান ফারলোতে চলিয়া যান। তখন দায়িত্বভার গ্রহণের কেহ ছিলেন না। তাই Miss Hale মাঝে মাঝে ময়মনসিংহ হইতে আসিয়া এই স্কুলের তত্ত্ববধান করেন। মিস এল.  হেন্ডারসনও ডিসপেসারির কাজের ফাঁকে ফাঁকে এই স্কুলে কাজ তত্ত্ববধান করেন। এই ভাবে তাহারা প্রধান শিক্ষিকা জানকী রেমাকে স্কুল পরিচালনার কাজে সাহায্য করেন।

১৯৫৬ সনে বেশ কিছু সংখ্যক ছাত্রীকে টনসিল অপারেশনের জন্য ঢাকায় পাঠান হয়। ভাবী প্রধান শিক্ষিকা-প্রকৃতি নাথ ও বিভা সাংমা এই আই. এ. পাশ করেন। শিক্ষিকাদের হোস্টেল সম্প্রসারণ করা হয়। পূর্ণাঙ্গ এম. ই. স্কুলের স্বীকৃতি পাওয়া যায়। ১৯৫৭ সনে তিন জন ছাত্রীকে বরিশালের ব্যাপ্টিস্ট মিশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়াইবার জন্য প্রেরণ করা হয়। এই বৎসর জুনিয়র শিক্ষিকা প্রণালিনী আজিম গ্রীষ্মকালীন ছুটিতে উদর প্রদাহ রোগে আক্রান্ত হন। তাহাকে অনেক কষ্টে মযমনসিংহ হাসপাতালে নিয়া গিয়াও বাঁচানো যায় নাই। এই বৎসর আটজন গাইড লিডার ও দুইজন গাইডার জেলা গাইড ক্যাম্পে যোগদানের জন্য ময়মনসিংহে গমন করে। তাহাদের মধ্যে একজন-কুলদা হাগিদক জেলার প্রতিনিধি হিসাবে Baden Powell Centenary Rally তে যোগদানের জন্য মনোনীত করা হয়। ১০০০ জন গাইডের এই র‌্যালি অক্টোবর মাসে লাহোরে অনুষ্ঠিত হয়। বৎসরের শেষের দিকে দুই জন শিক্ষিকা টনসিল অপারেশনের জন্য ঢাকায় গমন করেন।

১৯৫৮ সনে জাতীয় মিশন বৈথেলে রজত জয়ন্তিতে যোগদানের জন্য ছাত্রী ও শিক্ষিকা তারিনীতে গমন করে। উচ্চ শ্রেণির বেশি সংখ্যক ছাত্রী এই বৎসরে সরকারি বৃত্তি লাভ করে। এই বিদ্যালয়ের গাইডার জেলা পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়। তাহারা পূর্ব পাকিস্তানের ডেইম লেসলি হোয়েটালি শিল্ড প্রতিযোগিতার জন্য জেলা পর্যাযে মনোনীত হয়। অক্টোবর মাসে অনুষ্ঠিত এই প্রতিযোগিতায় তাহারা সারা পূর্ব পাকিস্তানের গাইডের সহিত প্রতিযোগিতা করিয়া বিজয়ী হয় এবং বিজয়িনীর বেশে মহানন্দে শিল্ড নিয়া আসে। এই বৎসরের প্রায় শেষের দিকে আগামী বৎসরের অনুষ্ঠিত স্কুলের হীরক জুবিলি উৎসব উদযাপনে প্রাক্তন ১০০০ জন ছাত্রীকে নিমন্ত্রন করার সিদ্ধান্ত হয়। জুবিলি ব্যাজ ও স্কুলের মটো ঠিক করা হয়।  “Lighted to Lighten” কে স্কুলের মটো হিসাবে গ্রহণ করা হয়। এই বছর স্কুলের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষিকা প্রকৃতি নাথ লাহোর Kinnard College হইতে বি. এ. পাশ করিয়া পশ্চিম বঙ্গের বহরমপুর ট্রেনিং কলেজে বি. টি. কোর্সে ভর্তি হন। স্কুলের ৬০ বৎসরের ইতিহাসে সংক্ষিপ্ত আকারে বাংলা ও ইংরেজিতে প্রকাশ করা হয়।

 

লেখক পরিচিতি

গারো সম্প্রদায়ের জ্ঞানতাপস, পণ্ডিতজন রেভা. মণীন্দ্রনাথ মারাক জন্মগ্রহণ করেন ১৯৩৭ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি। বর্তমনে তিনি দুর্গাপুর থানা ধীন নিজ বাড়ি বিরিশিরির পশ্চিম উৎরাইল গ্রামে বসবাস করছেন।  দুই ছেলে  এক মেয়ে। স্ত্রী প্রতিভা দারিংও একজন শিক্ষক ছিলেন। বর্তমানে অবসরে আছেন। রেভা. মণীন্দ্রনাথ মারাকের অনেক লেখা বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। উনার ‘বিরিশিরি মিশিন এবং ব্যাপ্টিস্ট মণ্ডলীর ইতিহাস’ একটি গুরুত্বপূর্ণ বই।

গারো সম্প্রদায়ের পণ্ডিতজন ও লেখক রেভা মণীিন্দ্রনাথ মারাক

জ্ঞানতাপস মণীন্দ্রনাথ মারাক

আরো লেখা..

বিরিশিরি বালিকা বিদ্যালয়ের ইতিহাস ।। পর্ব-৫ ।। মণীন্দ্রনাথ মারাক

বিরিশিরি বালিকা বিদ্যালয়ের ইতিহাস ।। পর্ব-৬ ।। মণীন্দ্রনাথ মারাক

রবীন্দ্রনাথের চোখে ।। মতেন্দ্র মানখিন

গারো জাতির সন্তান জন্ম ও নামকরণ, একটি সংস্কৃতির ধারা ।।  বেনেডিক্ট এম. সাংমা

https://www.facebook.com/thokbirim/videos/1163701897348748

সামাজিক বনায়নের নামে আদিবাসীদের নিজ বাসভূমি থেকে উচ্ছেদ ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে দ্বিতীয় দিনের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ।

Gepostet von Thokbirimnews.com am Mittwoch, 16. September 2020




সম্পাদক : মিঠুন রাকসাম

উপদেষ্টা : মতেন্দ্র মানখিন, থিওফিল নকরেক

যোগাযোগ:  ১৯ মণিপুরিপাড়া, সংসদ এভিনিউ ফার্মগেট, ঢাকা-১২১৫। 01787161281, 01575090829

thokbirim281@gmail.com

 

থকবিরিমে প্রকাশিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। Copyright 2020 © Thokbirim.com.

Design by Raytahost
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x