Thokbirim | logo

২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

চুচ্চুুরু/চিপরু/সোপ্রু ।। গারো সম্প্রদায়ের পানীয় ও খাদ্য বৈচিত্র্য

প্রকাশিত : আগস্ট ২৯, ২০২০, ২০:৩৭

চুচ্চুুরু/চিপরু/সোপ্রু ।। গারো সম্প্রদায়ের পানীয় ও খাদ্য বৈচিত্র্য

চুচ্চুরু/চিপরু/সোপ্রু অঞ্চল ভেদে নামের উচ্চারণে তারতম্য রয়েছে। চুচ্চুরু/চিপরু/সোপ্রু মানে শামুক। চুচ্চুরু/চিপরু/সোপ্রু গারো সম্প্রদায়ের একটি প্রিয় খাবর। তবে সব ধরনের শামুক খাওয়ার উপযোগী নয়। অর্থাৎ শামুকেরও প্রকার ভেদ রয়েছে।  সাধারণত জলাশয়ে পাওয়া যায় যা দেখতে অনেকটা ছোট শঙ্খের মতো ধূসর রংয়ের এই জাতীয় শামুক খাবারের জন্য সংগ্রহ করা হয়। আবার আরেক ধরনের বড় আকৃতির শামুক পাওয়া যায় যাবে  গারো ভাষায় বলে আপ্রু। সেটিও খাবার উপযোগী।

শামুক সাধারণত জলাশয়, খাল বা ধান ক্ষেত থেকে সংগ্রহ করা হয় এবং বেশ কয়েকবার ধুয়ে  সারারাত পরিস্কার পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হয়। এতে শামুমের ভেতরে থাকা ময়লাগুলো বেরিয়ে আসে।  পুরো রাত ভিজিয়ে রাখার পর পরের দিন সকালে শামুকের কুচিল (ঠোঁট) ও পিছন অংশ কেটে রান্নার উপযোগী করা হয়। কেউ কেউ হাল্কা সিদ্ধ করেও নেন। এতে সুবিধা হচ্ছে রান্নার জন্য শামুক তৈরিতে সমস্যা হয় না, সময়ও কম লাগে।

শামুক নানাভাবে রান্না করা যায়। তেল মসলা সহযোগে কিংবা গারো সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী খাবার প্রণালি নাখাম ক্ষারি সহযোগে। তবে কোনো কোনো এলাকার কেউ কেউ শামুক নাখাম ক্ষারি এবং ডাল কিংবা চালের গুঁড়ো দিয়ে রান্না করে খান। এই রান্নার স্বাদই অন্যরকম! অনেকেই এই রান্না বেশি পছন্দ করে থাকে।

।। থকবিরিম ডেস্ক

কুচিয়া ।। গারো সম্প্রদায়ের খাদ্য

খিমখা ।। গারো সম্প্রদায়ের খাদ্য

মিচেং ।। বুনো সবজি।। গারো সম্প্রদায়ের খাদ্য




সম্পাদক : মিঠুন রাকসাম

উপদেষ্টা : মতেন্দ্র মানখিন, থিওফিল নকরেক

যোগাযোগ:  ১৯ মণিপুরিপাড়া, সংসদ এভিনিউ ফার্মগেট, ঢাকা-১২১৫। 01787161281, 01575090829

thokbirim281@gmail.com

 

থকবিরিমে প্রকাশিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। Copyright 2020 © Thokbirim.com.

Design by Raytahost