Thokbirim | logo

১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ | ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

গারো সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী লোকসঙ্গীত : রে রে ।। পর্ব-৩।। মতেন্দ্র মানখিন

প্রকাশিত : আগস্ট ২২, ২০২০, ১০:২৫

গারো সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী লোকসঙ্গীত : রে রে ।। পর্ব-৩।। মতেন্দ্র মানখিন

পূর্ব প্রকাশের পর…

২. পিরিতি

পিরিতি বাংলা শব্দ। যার অর্থ প্রেম-ভালবাসা, আন্তরিকতা। গারো ভাষায় হয়তো এর যুৎসই শব্দ খুঁজে পাইনি। তাই হয়তো পিরিতি শব্দই ব্যবহার করেছে। এই রে-রের ভাবই মূলত প্রেমিক -প্রেমিকার মনের আকুলতা ব্যাকুলতা প্রকাশ। এই রে-রের বিশেষ বৈশিষ্ট হল রূপক হিসেবে বেছে নেয় বিভিন্ন প্রজাতির মাছকে। প্রেমিক-প্রেমিকা হয় যায় নদী-নালা, খাল-বিল ইত্যাদির সন্তরণশীল মাছ। মাছে মাছে যেমন জলক্রিড়া হয়। তেমনি হয় ভাব বিনিময় ও প্রেম-লীলা। মাছ জলক্রিড়ায় নিপুন তাদের সচরাচর দেখা যায়না। প্রেমিক প্রেমিকা তাই সেই রূপকের সাহায্যে চলে যায় প্রেমের গভীর সাগরে। এ ভাবে সব ধরণের মাছ দিয়ে হয় পিরিতির রে-রে।

পুরুষ: হো………গাংমানি লাঞ্চনা উজিইবাআইয়া ( নন নাংচামিকখাংয়ি) ২

দিইসোবো নন চেকখো চেকমা চেকসি বিইথংয়ি। হা-রে-রে।

বাংলা

গাঙেতে নতুন জল উখাল পাতাল করতাছে

তোল নন শিকজাল লাছ মাছ উজাইছে।

মহিলা: দিইসোওবো চেকখো নাআ (চকমা চেকসি বিইথংয়ি)২

দংসোওবো নিরলে গাংকলাও আচংয়ি। হারে-রে।

বাংলা: তোল তোল শিকজাল ভাঙিয়া ভাঙিয়া

থাকো তুমি নিরলে গাঙপাড়ে বসিয়া।

 

পুরুষ:  হো…… বলবিলা কানজিও ( কই মাগুল উজাইজক) ২

খাল¬া বাজুসিগানা জামান হামুরিগানজক। হা-রে-রে।

বাংলা

বলবিলা কাঞ্জিতে কই মাগুর উজাইতেছে

পরান বন্ধুর লাগিয়া মনদা কেমন করতেছে।

মহিলা: হো…… জামান হামুরিগানজক (খাল¬া বাজুসিগানা)২

হাই রেইবো আকগ্নি জালজালি মারিনা। হা-রে-রে।

বাংলা

পরান বন্ধুর লাগিয়া মনদা কেমন করতাছে।

চলো আমার সাথে যাই জানজালি খেলতেছে।

 

পুরুষ: হো…… জানজালি মারিনা (হাই রেইবো আকগ্নি) ২

বোয়াল নানি খিমিখো নাংনা সংয়িঅনগানি। হারে-রে।

বাংলাা

হো….. জানজালি মারিতে চলো যাই এক সাথে

বোয়াল মাছের লেজটা দিব তোমার পাতেতে।

 

৩ রামায়ণী

ঐতিহাসিক বিদদের মতে খ্রি. পূর্ব ৩০০-৪০০ অব্দে প্রথম রামায়ণ পরে মহাভারত রচিত হয়েছে। ভারত মহাসমরের ‘কুরুক্ষেত্র যুদ্ধ হয় ১৫১২ খ্রি. সেই যুদ্ধে গারো রাও কৌরব দলের পক্ষে যুদ্ধ করেছিলেন বলে জানা যায়। সেই থেকেইে “রামায়ণ”  মহাভারতের কাহিনি জানা বা শোনা গারোদের পক্ষে অসম্ভব ছিল না হয়তো। সেই থেকে মুখে মুখে প্রচারিত রামায়ণ কাহিনিগুলো গারোদের লোক সংগীত রে-রেতে সংমিশ্রন ঘটে যাওয়া বিচিত্র কিছু নয়। তখনকার লেখাপড়া না জানা নিরক্ষর গারোরা মুখে মুখেই অনেক কিছু শেখে ফেলতো। রে-রের মধ্যে এত রূপক, এত উপমা, এক উৎপ্রেক্ষা সৃষ্টি হয়েছে যা কল্পনাতীত। আর তারা  সৃষ্টি করতে পেরেছে কালজয়ী রামায়ণী -রে-রে।

তৎকালীন সময়ে কোচ, কাচারি, রাভা অহমিয়া ও আর্য হিন্দুদের পাশাপাশি বসবাসের ফলে এবং পরবর্তীকালে সমতল ভূমিতে এসে হাজং, বানাই, কোচ, ঢালু এদের সাথে পাশাপাশি বসবাসের ফলেও গারোরা রামায়ণ এর অনেক কাহিনি শুনার সুযোগ হয়েছে। কেউ কেউ রামায়ণ মহাভারত ও পাঠ করার সুযোগও পেয়েছে। তাছাড়া অনেকেই হাজংদের সাথে রাম-মঙ্গল পালা গানেও অংশ নিয়েছে। এভাবেই রামায়নের কাহিনি তাদের অন্তরে গেঁথে যেতে পারে। আর অভিজ্ঞতার আলোতেই তৈরি হয়েছে রামায়ণ রে-রে। রামায়ণী রে-রে তে শোনা যায় রাম লক্ষণের কথা, সীতার বন বাসের কথা, হুনুমানের কথা, সীতা হরণের কথা এবং রাম-রাবনের যুদ্ধের কথা। যেমন-

রে-রে :

হো …নাখো রিমনা ইন্নিসা চিত্ত রি.প্পা রংগিলা

সীতা হরণ দাকাখো নিকরিককানো বগিলা? হা-রে রে…

 

বাংলা

এখানে বক জলাশয়ে মাছ ধরার জন্য দাঁড়িয়েছিল। সেই বককে প্রশ্ন করেছে।

মাছ ধরতে বয়ছিল মাছলেঙ্গা রঙিলা

সীতা হরণ করারাটা দেখেছো নাকি বগিলা?

 

এর উত্তরে বক বলছে-

হো…রাবনরাজা সীতাখো সগাসাকদি রাআংজক

চিত্ত দংয়ি চাদিংয়ি জামিদিংখো নিকরিকজক।

বাংলা:

রাবন রাজা সীতারে নিয়ে গেছে উপরে

পানির মধ্যে দাঁড়াইয়া দেখতে পাইলাম ছায়ারে।

 

রে-রে:

হো…সাল নাবাজকওন (রাম লক্ষণ সিগানি) ২

রেবাইয়া হলুমান পালমাখো হিটচিলিই। হা-রে-রে।

বাংলা:

রাম লক্ষণ মারা যায়বো সূর্য উঠলে রাঙিয়া

আয়লোরে হনুমান পাহাড় পর্বত ভাঙিয়া।

 

রে-রে:

রাম-লক্ষণ আদাসা (বনবাসচা রেয়েংআ)২

সীতা আকসান দংআখো মরাবণ সেক্কে খাতাংআ। হারে-রে।

 

বাংলা:

রাম লক্ষণ দুই ভাই বনবাসে আছিলো।

রাবন রাজা আসিয়া সীতা হরণ করিল।

 

আরো লেখা…

পর্ব-১ এবং পর্ব-২

https://thokbirim.com/2020/08/17/%e0%a6%97%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a7%8b-%e0%a6%9c%e0%a6%be%e0%a6%a4%e0%a6%bf%e0%a6%b8%e0%a6%a4%e0%a7%8d%e0%a6%a4%e0%a6%be/

https://thokbirim.com/2020/08/18/%e0%a6%97%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a7%8b-%e0%a6%b8%e0%a6%ae%e0%a7%8d%e0%a6%aa%e0%a7%8d%e0%a6%b0%e0%a6%a6%e0%a6%be%e0%a7%9f%e0%a7%87%e0%a6%b0-%e0%a6%90%e0%a6%a4%e0%a6%bf%e0%a6%b9%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%ac/




সম্পাদক : মিঠুন রাকসাম

উপদেষ্টা : মতেন্দ্র মানখিন, থিওফিল নকরেক

যোগাযোগ:  ১৯ মণিপুরিপাড়া, সংসদ এভিনিউ ফার্মগেট, ঢাকা-১২১৫। 01787161281, 01575090829

thokbirim281@gmail.com

 

থকবিরিমে প্রকাশিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। Copyright 2020 © Thokbirim.com.

Design by Raytahost
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x