Thokbirim | logo

৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ | ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বন্ধুত্ব, সে তো চিরদিনের ।। ফাদার গৌরব জি. পাথাং

প্রকাশিত : আগস্ট ০২, ২০২০, ০০:৪৫

বন্ধুত্ব, সে তো চিরদিনের ।। ফাদার গৌরব জি. পাথাং

বন্ধুত্বের সম্পর্ক চিরদিনের সম্পর্ক এবং মধুর সম্পর্ক। বন্ধুত্বের সম্পর্ক রক্তের সম্পর্ক নয় কিংবা কামনা বাসনা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত বা পরিচালিত নয়। বন্ধুত্বের উৎসস্থল হল হৃদয় এবং বন্ধুত্ব হৃদয়ের ভালবাসা দিয়ে গড়া। তাই কবি কাজী নজরুল ইসলাম বলেছেন “অনাত্মীয়কে আমরা ঢাক-ঢোল পিটিয়ে সাদরে গ্রহণ করি কিন্তু বন্ধুকে হৃদয় দিয়ে এবং হৃদয়ের হাসি দিয়ে বরণ করি।”

বন্ধুত্ব কী, তার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে বিভিন্ন জন বিভিন্ন মতামত ব্যক্ত করেছেন। ফ্রান্সিস বেকন বলেছেন, “ভালবাসা হল লাল গোলাপের মত কিন্তু বন্ধুত্ব হচ্ছে ছায়াময়ী বৃক্ষের মতই জীবনের প্রতিদিনের প্রয়োজন এবং বাস্তবতার মধ্যেই তার সরল বিচরণ।” এরিষ্টটল বলেছেন, “একজনও বন্ধুর মত বন্ধু থাকা পরম ভাগ্যের ব্যাপার।” কেউ কেউ বন্ধুত্বকে সোনালী  সূতার সঙ্গে তুলনা করে বলেছেন, “বন্ধুত্ব হচ্ছে সোনালী সূতো যা হৃদয়কে এক সূত্রে গেঁথে দেয়।” আবার কেউ কেউ বলেছেন, “ ভিন্ন দেহে অভিন্ন আত্মা তারই নাম বন্ধুতা।” বন্ধুত্ব নিয়ে ইংরেজিতে একটি কথা আছে, ‘‘Only Unsinkable ship is FRIENSHIP” পৃথিবীর সব সম্পর্কের জাহাজ সাগরের জলে তলিয়ে গেলেও বন্ধুত্বের জাহাজ কখনো সাগরের জলে তলিয়ে যায় না। তাই বলা হয়, বন্ধু মরে যায় কিন্তু বন্ধুত্ব মরে না। আজকাল যুবক যুবতীরা বন্ধুত্বের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে বলেন, “একদিন ভরা নদী শুকিয়ে যাবে, ফুলও ঝরে যাবে তবু আমার বন্ধুত্ব চিরদিন রয়ে যাবে।” সত্যিই তো! বন্ধুত্ব কখনো শেষ হয়ে যায় না। বন্ধু হারিয়ে যায়, বন্ধুত্ব হারিয়ে যায় না। বন্ধু মরে যায়, বন্ধুত্ব মরে না।

ইংরেজিতে বন্ধুকে Friends  বলা হয়। যার অর্থ হল:

F- Fight for you

R- Respect you

I-Include you

E- Encourage you

N-Need you

D-Deserve you

S- Stand by you

খ্রিষ্টধর্মের প্রবর্তক যিশু খ্রিষ্ট বলেন, “বন্ধুদের জন্যে প্রাণ দেওয়ার চেয়ে বড় ভালবাসা মানুষের আর কিছুই নেই।” তিনি মানুষকে বন্ধু বলেছেন। তিনি বলেছেন, আমি তোমাদের আর দাস বলছি না কারণ মনিব কি করছেন তা তো দাসের জানার কথা নয়। আমি পিতার কাছ থেকে যা জেনেছি তা তো তোমাদের জানিয়েছি। তিনি বন্ধুর জন্য ক্রুশে নিজ জীবন বিসর্জন দিয়েছেন। তার আদর্শে অনেকেই অনুপ্রাণিত হয়ে তার মত বন্ধুর উপকার করেছেন। এমন উপকারী একজনের নাম হল ম্যাক্সিমিলিয়ান কল্বে। অনেক যুদ্ধবন্দিদের সাথে তাকেও বন্দি করা হয়েছিল। একদিন এক সেনা এমন একজনকে মৃত্যদণ্ড দেওয়ার জন্য বেছে নিল যার সংসার, স্ত্রী আছে। লোকটি স্ত্রী ও সন্তানদের কথা চিন্তা করে কাঁদতে লাগলেন। তখন সেই ম্যাক্সিমিলিয়ান এগিয়ে এসে বললেন, আমাকে মৃত্যুদন্ড দিন। কারণ আমার তো সংসার নেই। তার যে সংসার আছে। ম্যাক্সিমিলিয়ান ছিলেন খ্রীষ্টান পুরোহিত। তিনি হাসিমুখে বন্ধুর জন্য নিজের প্রাণ বিসর্জন দিলেন। তার এ অসীম ভালবাসা ও বন্ধুত্বের জন্য আজ তাকে সাধু বলে সম্মান জানানো হয়।

মনীষীগণ বলেন, “ বসুন্ধৈব কুটম্বকম” অর্থাৎ কেউ শক্রু নয়, সারা জগতই আমার বন্ধু, আমার আত্মীয়। এ নীতি ও আদর্শ গৌতম বুদ্ধ আজীবন পালন করেছেন এবং প্রচার করেছেন। তিনি মানুষকে এবং সকল প্রাণীকেই ভালবেসেছেন। প্রাণ নাশের বিপক্ষে ছিলেন। তার কাছে সবাই ছিল বন্ধু, ভাই বোন এবং আত্মীয়।

জনৈক এক কবি বলেন, “দুয়ারে দাঁড়ায়ে আছে, বন্ধু বলেছ যারে, কণ্ঠে দোলাও তার মালা। আসেনি সে ঝড় হয়ে, এসেছে দখিনা লয়ে, জানে না দিতে জ্বালা।” আমাদের জীবনে বন্ধুর আগমন এমনই এক শান্তির বাণী নিয়ে। বন্ধু আসে হৃদয়ে প্রশান্তি নিয়ে। বন্ধু মনের জ্বালা নিভিয়ে দেয়, হৃদয়ের আকাক্সক্ষা পূরণ করে, মনের ক্ষুধা  তৃষ্ণা মিটিয়ে দেয়।

জীবনের বন্ধুরা কোথায়: জীবনের বন্ধুরা কে কোথায় আছে? কতজন বিয়ের পর দূরে চলে গেছে, কতজন দেশ ছেড়ে চলে গেছে, কতজন ঝরে গেছে, কতজন পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারেনি বলে থেমে গেছে। এমনি করে জীবনের বন্ধুরা যার যার অবস্থানে আছে। আমাদের এই চলার পথে আমরা যেমন কিছু হারাই, তেমনি আবার কিছু পাই। হয়তো কেউ হারিয়ে যায়, কেউ দূরে সরে যায়, কেউবা ঝরে যায়। আবার কেউ কেউ নতুন বন্ধু পেয়ে পুরনোকে ভুলে যায়। কিন্তু মনে রাখতে হয়, বন্ধু কখনো পুরাতন হয় না। বন্ধুত্ব সে তো চিরদিনের এবং সে তো চিরঞ্জীব।  এ কথাটি সুন্দর করে ইংরেজিতে বলা হয়,

“Make a new friend, keep the old

One is silver, the other is gold”

প্রকৃত বন্ধু আরেক বন্ধুর কথা সর্বদাই চিন্তা করে এবং মঙ্গল বিবেচনা করে। প্রকৃত বন্ধু বন্ধুর ভাল কাজে অনুপ্রেরণা দেয়, তেমনি তার দোষ ত্রুটিও বলে দেয়।

“Only your real friends tell you when your face is dirty. Life without a friend is like death without a witness. Walking with a friend in the dark is better than walking alone in the light.”

বন্ধুত্বের উদাহরণ: ১৪৮০ খ্রিষ্টাব্দে জার্মানির ন্যুরেমবার্গের এক গ্রামে র্কাল এবং আলব্রেট নামে দুই বন্ধু বাস করতেন। দুই জনের মধ্যে খুবই মধুর সম্পর্ক ছিল। তারা দুইজনই খুবই সুন্দর সুন্দর ছবি আঁকতে পারতেন। একদিন সেই গ্রামের পুরোহিত মুগ্ধ হয়ে তাদেরকে বললেন, আমি কিছু খরচ দিই, তোমরা বার্লিনে চলে যাও। সেখানে গিয়ে আর্ট স্কুলে ভর্তি হয়ে ভালমত ছবি আঁকা শিখে এসো। তারা দুজন বার্লিনে গেলেন কিন্তু কেউ পরিচিত না থাকায় সমস্যায় পড়লেন। তারা তখন কাজ খুঁজতে লাগলেন। সাতদিন পর এক বুড়ি দুজনের মধ্যে একজনকে ঘর মোছা, ঝাড়– দেওয়ার কাজ দিতে রাজি হলেন। তারা সিদ্ধান্ত নিলেন, একজন পড়বে আরেকজন কাজ করবে এবং পরবর্তীতে আরেকজনকে লেখাপড়া শিখাতে সাহায্য করবে। সেই অনুসারে কার্ল কাজ করার সিদ্ধান্ত নিল এবং আলব্রেট আর্ট স্কুলে ভর্তি হল। কার্ল কাজ করে তার সব খরচ চালিয়ে যেতে লাগল। আলব্রেট লেখাপড়া করে গহনা ডিজাইনার হিসেবে কাজ পেল। এবার আলব্রেট তার বন্ধু কার্লকে আর্ট স্কুলে ভর্তি করিয়ে দিল। বিকেলে কাজ থেকে ফিরে এসে দেখে কার্ল মাথা নিচু করে বসে আছে। আলব্রেট তার মন খারাপের কারণ জানতে চাইলেন। কার্ল বলল, আমি আর ছবি আঁকতে পারব না। কারণ কাজ করতে করতে আমার আঙুলের নিচের মাংস শক্ত হয়ে গেছে । এ আঙুল দিয়ে আর ভালমত তুলি ধরতে পারব না। তার কথা শুনে আলব্রেট দুঃখ পেল। তারপর বলল, যে হাত দিয়ে আমাকে মানুষ করেছ সেই হাত আমি ফিরিয়ে দিতে পারব না। তোমার হাতের ছবি আঁকব আমি। বন্ধুর অনুরোধে কার্ল প্রার্থনার ভঙ্গিতে হাত তুলে ধরল। সেই ছবিই একদিন বিশ্ব বিখ্যাত হয়ে উঠল। এই ছবির নাম হল The Praying Hands.. মাদার তেরেজা ও পোপ দ্বিতীয় জন পলের বন্ধুত্ব, আসিসির সাধু ফ্রান্সিস ও সাধ্বী ক্লারার বন্ধুত্ব আজও পৃথিবীর বুকে অমর হয়ে আছে। এছাড়াও ধর্মীয় পুস্তক বাইবেলে কিছু উদাহরণ আছে। যেমন রাজা দাউদ ও যোনাথনের বন্ধুত্ব। যোনাথনের বাবা রাজা শৌল দায়ুদকে মারার জন্য চেষ্টা করেন কিন্তু যোনাথনের কারণে বেঁচে যান দায়ুদ। কারণ যোনাথন তার বাবা পরিকল্পনা ও অবস্থা সম্পর্কে বলে দিতেন।

আজ বন্ধু দিবস স্মরণ করিয়ে দেয়, দূরের বন্ধু, কাছের বন্ধু, দেখা বন্ধু, অদেখা বন্ধু ও ভুলে যাওয়া বন্ধুদের। বন্ধু দিবস আহ্বান জানায়, বন্ধুত্বের বন্ধন দিয়ে সকলবে কাছে টানার এবং সকলের সাথে বন্ধুত্ব গড়ে তোলার। বন্ধু দিবস আসে দখিনা নিয়ে, বন্ধুত্বের সুবাতাস নিয়ে। সে ঝড় হয়ে নয়, কাঁটা হয়েও নয়। সে আসে ভালবাসা নিয়ে। ভালবাসাই বন্ধুত্বকে জীবন দেয় এবং বাঁচিয়ে রাখে। তাই আজ এই বন্ধু দিবসে আমি এই কথা বলতে চাই-

বন্ধুত্ব, সে তো চিরদিনের এই কথা মনে রেখো

যত দূরে যাও, যত ব্যথা পাও ভুলে যেও নাকো।

 

।। ফাদার গৌরব জি. পাথাং লেখক এবং খ্রিষ্টান যাজক

পরিচালক, মরো সেমিনারি, ২৮ জিন্দাবাহার ১ম লেন, ঢাকা-১১০০।

gourobcsc@gmail.com




সম্পাদক : মিঠুন রাকসাম

উপদেষ্টা : মতেন্দ্র মানখিন, থিওফিল নকরেক

যোগাযোগ:  ১৯ মণিপুরিপাড়া, সংসদ এভিনিউ ফার্মগেট, ঢাকা-১২১৫। 01787161281, 01575090829

thokbirim281@gmail.com

 

থকবিরিমে প্রকাশিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। Copyright 2020 © Thokbirim.com.

Design by Raytahost