Thokbirim | logo

১৪ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বিরিশিরিতে জিবিসির বড় সভায় থকবিরিম

প্রকাশিত : জুলাই ১৮, ২০২০, ১৭:০৪

বিরিশিরিতে জিবিসির বড় সভায় থকবিরিম

থকবিরিম একটি গারো ভাষার শব্দ। বাংলায় ভাষান্তর করলে থকবিরিম মানে হলো বর্ণমালা। আবার থকবিরিম মানে একত্রিতকরণ ও বোঝায়। বর্ণমালা কিংবা একত্রিত করণ যেটাই হোক থকবিরিম গারো ভাষা শিল্প সাহিত্য নিয়ে কাজ করার চেষ্টা করছে। সেই সাথে ভিন্ন ভাষাভাষী লেখক-কবি সাহিত্যিকদের সাথে গারো সম্প্রদায়ের লেখক কবি সাহিত্যিকদের ভাবনার বিনিময়, সাহিত্যের আদানপ্রদানের কাজটিও করার চেষ্টা করে যাচ্ছে। এই লক্ষ্যেই থকবিরিম বিভিন্ন সময় বিভিন্ন স্থানে সভাসমাবেশে তাদের প্রকাশিত বই কিংবা অন্য প্রকাশনীর বই নিয়ে হাজিরও হচ্ছে।

তারই ধারাবাহিকতায় বিরিশিরিতে গারো সম্প্রদায়ের সব চে বড় ধর্মীয় সংগঠন জিবিসির বড় সভায় থকবিরিম তার প্রকাশিত বই ও সাহিত্যপত্রিকা নিয়ে উপস্থিত ছিলো। সেখানে থকবিরিম সাহিত্যপত্র এবং প্রকাশনী তাদের মতাদর্শ অনুযায়ী গারো সম্প্রদায়ের বিভিন্ন লেখকদের বই ও থকবিরিম সাহিত্যপত্র নিয়ে উপস্থিত ছিলো।

বড় সভাতে গারো পাঠকদের বইয়ের প্রতি আগ্রহ সত্যিই বিস্ময়কর! তাদের জানার আগ্রহ কিংবা বই কেনার আগ্রহ ছিলো সত্যিই অবাক করার মতো। ছোট ছোট ছেলেমেয়েরা যেভাবে থকবিরিম সাহিত্যপত্রকে, থকবিরিমের বইগুলো ধরে দেখেছে, ছুঁয়ে দেখেছে এটাই থকবিরিমের জন্য বড় পাওয়া। আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষৎ! তারাই একদিন এই সমাজটাকে শাসন করবে, যতন করবে। তাদের মনন মেধাই পাল্টে দেবে সমাজকে, নিজস্ব সম্প্রদায়ের পুরনো চিন্তাধারাকে।

থকবিরিম তাদের প্রকাশিত গারো সম্প্রদায়ের বিভিন্ন লেখক-কবি- সাহিত্যিকদের বই নিয়ে সাধারণ পাঠকদের কাছে পৌছানোর চেষ্টা করার কারণ হচ্ছে কবি-সাহিত্যিকদের লেখার সাথে সাধারণ পাঠকদের একটি সেতুবন্ধন তৈরির চেষ্টা করা, পাঠাভ্যাস তৈরি করা।

বিরিশিরি একটি অতিপরিচিত নাম।  সিমসাং নদীর তীরে অবস্থিত। বিরিশিরিকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে কালচারাল একাডেমি, জিবিসির মতো বৃহত্তম ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান। গারো সম্প্রদায়ের বেশিরভাগ ধর্মীয় নেতার বাড়ি বিরিশিরিতে। যদিও বিরিশিরির খ্যাতিতে অন্যান্য পার্শ্ববর্তী গ্রামগুলো ম্লান হয়ে গেছে ফলে সবাই বিরিশিরির পরিচয়ই পরিচিত হতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে।

বিরিশিরিকে কেন্দ্র করে কালচারাল একাডেমি, পিটিআই, জিবিসি স্কুল, YMCA, YWCA এই প্রতিষ্ঠানগুলো গড়ে উঠেছে। ফলে মানুষের সামাজিক-অর্থনৈতিক- সাংস্কৃতি জীবনে পরিবর্তন এসেছে। শিক্ষার দিক থেকে এগিয়ে এসেছে।

বর্তমান সময়ের গারো সম্প্রদায়ের পণ্ডিতজন, সমাজ চিন্তক, গবেষক, শিক্ষাবিদ, ধর্মীয় নেতা রেভা. মণীন্দ্রনাথ মারাক বিরিশিরির পশ্চিম উৎরাইলে বসবাস করছেন। রেভা. মণীন্দ্রনাথ মারাক লিখিত ‘ বিরিশিরি মিশন এবং ব্যাপ্টিস্ট মণ্ডলীর ইতিহাস’ গ্রন্থে সেই ইতিহাস জানা যায়। বইটি একটি গুরুত্বপূর্ণ দলিল হয়ে থাকবে। বইটি প্রকাশ করেছে থকবিরিম প্রকাশনী।

গারো সম্প্রদায়ের আরেকজন পণ্ডিত ব্যক্তি লেখক মৃত রেভা. ক্লেমেন্ট রিছিল। তাঁর বাড়িও বিরিশিরিই। এভাবে সুভাস সাংমা থেকে শুরু করে অনেক নাম চলে আসবে তালিকায়। পাঠক আপনারা রেভা. মণীন্দ্রনাথ মারাকের বই সংগ্রহ করে জেনে নিতে পারেন সেইসব প্রখ্যাত ব্যক্তিদের নাম।

বর্তমান সময়ে বিরিশিরির তরুণ প্রজন্মও তাদের নানা কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে উঠে আসছেন জাতীয় পর্যায়ে। যেমন রাজনীতিবিদ রেমন্ড আরেং।তৈরি হচ্ছে ডাক্তার কিংবা নার্স। অগ্রজ লেখকদের অনুসরণ করে এগিয়ে আসছেন  তরুণ লেখক দিশন অন্তু রিছিল কিংবা কবি ফৈবী ছিরিং মারাক।

বিরিশিরিতে জিবিসির বড় সভার কিছু স্থির চিত্র :

।। থকবিরিম প্রতিনিধি

এই বিষয়ক আরো খবর

আবিমা ফ্যাস্টিভালে থকবিরিম

উত্তরা রংচু গালায় থকবিরিম

ফাদার হোমারিক আ’বিমা উন্নয়নের পথিকৃত ।। ধীরেশ চিরান

https://www.facebook.com/thokbirim/videos/1163701897348748

সামাজিক বনায়নের নামে আদিবাসীদের নিজ বাসভূমি থেকে উচ্ছেদ ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে দ্বিতীয় দিনের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ।

Gepostet von Thokbirimnews.com am Mittwoch, 16. September 2020




সম্পাদক : মিঠুন রাকসাম

উপদেষ্টা : মতেন্দ্র মানখিন, থিওফিল নকরেক

যোগাযোগ:  ১৯ মণিপুরিপাড়া, সংসদ এভিনিউ ফার্মগেট, ঢাকা-১২১৫। 01787161281, 01575090829

thokbirim281@gmail.com

 

থকবিরিমে প্রকাশিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। Copyright 2020 © Thokbirim.com.

Design by Raytahost